একদিনে চার হাজার মৃত্যুর ভয়াবহ মাইলফলকও ছুঁয়ে ফেলল ভারত। গত শুক্রবার দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অন্তত ৪ হাজার ১৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেখানে এখন পর্যন্ত একদিনে এটাই সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

ওয়ার্ল্ডোমিটারের হিসাব অনুসারে, করোনায় একদিনে চার হাজারের বেশি মৃত্যু দেখা তৃতীয় দেশ ভারত। এর আগে কেবল যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে একদিনে এত বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

ওয়েবসাইটটির হিসাবে, গত ১২ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৪ হাজার ৪৯০ জন মারা গেছেন। বিশ্বে এটিই এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

jagonews24

ভারতে মাইলফলক শুধু প্রাণহানিতেই নয়, হয়েছে আক্রান্তের হিসাবেও। শুক্রবার টানা তিনদিন চার লাখের বেশি নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে সেখানে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার করোনা ডেটাবেজ অনুসারে, শুক্রবার ভারতে নতুন করে ৪ লাখ ১ হাজার ৫২২ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন।

সংবাদমাধ্যমটি জানিয়েছে, করোনা মহামারি শুরুর দিকে এক বছরে ভারতে যত মানুষ আক্রান্ত না হয়েছে, তারচেয়েও বেশি আক্রান্ত হয়েছে দ্বিতীয় ঢেউয়ের ৮২ দিনে। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে দেশটিতে ১ কোটি ৯ লাখ ৬৮ হাজার ৩৯ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন, যেখানে গত বছরের ৩০ জানুয়ারি থেকে এ বছরের ১৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৯ লাখ ১৬ হাজার ৪৮১ জন।

jagonews24

যদিও মহামারির দ্বিতীয় ঢেউ শুরুর নির্দিষ্ট কোনো দিন চিহ্নিত করা যায় না, তবে ভারতে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে সাপ্তাহিক আক্রান্তের হার ক্রমাগত বাড়তে থাকায় ওই দিন থেকেই দ্বিতীয় ঢেউয়ের সূচনা বলে ধরা হচ্ছে।

দেশটিতে মহামারির দ্বিতীয় ঢেউয়ে ৮২ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় মারা গেছেন, যা এ পর্যন্ত মোট মৃত্যুর অর্ধেকেরও বেশি। সরকারি হিসাবে সেখানে এখন পর্যন্ত করোনায় ২ লাখ ৩৮ হাজার ১৯৭ জন মারা গেছেন।

তবে ভারতজুড়ে করোনায় মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা এরচেয়েও অনেক বেশি বলে মত বিশেষজ্ঞদের। কারণ, সেখানে কেবল হাসপাতালে মারা যাওয়া ব্যক্তিদেরই গণনা করা হচ্ছে। বাড়িতে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের কোনো হিসাব রাখা হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *