রোহিঙ্গা অধ্যুষিত উখিয়ার বালুখালী বাজারে খোলা একটি অত্যাধুনিক ব্যায়ামাগারে গতকাল শুক্রবার উদ্বোধনী দিনেই ২০ জনের মধ্যে ১৫ জন রোহিঙ্গা যুবক ভর্তি হয়েছেন।

অপরদিকে স্থানীয় গ্রামবাসী যুবক ভর্তি হয়েছে মাত্র ৫ জন। রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ড নিয়ে যে সময় রোহিঙ্গা শিবিরগুলোতে চলছে টালমাটাল অবস্থা এমন সময়েই স্থানীয় এক ব্যক্তি এমন অত্যাধুনিক ব্যায়ামাগারটি খুলে বসেছেন।
শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর ‘আল রুহি ডিজিটাল ফিটনেস জিম’ নামের ব্যায়ামাগারটি উদ্বোধন করা হয়। প্রতিষ্ঠানের মালিক আলাউদ্দিন নিজেই এটির উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একই রংয়ের সাদা গেঞ্জি পরিহিত আধুনিক হেয়ার কাটের রোহিঙ্গা যুবকরা আনন্দে বিভোর হয়ে পড়ে।

বালুখালী বাজারের সড়কের ধারে সড়ক ও জনপথের জমির ওপর নির্মিত আবদুস সালাম ড্রাইভার মার্কেটে অত্যাধুনিক ব্যায়ামাগারটি খোলা হয়।

বালুখালীর স্থানীয় আলাউদ্দিন নামের একজন বাসিন্দা প্রায় ৩০/৩৫ লাখ টাকা ব্যয়ে এটি স্থাপন করেনে। অনুষ্ঠানে বলিবাজার নামে পরিচিত স্থানীয় রোহিঙ্গা মাকের্টের মালিক স্থানীয় জামায়াত নেতা গফুর উল্লাহসহ কারাতে শেখার রোহিঙ্গা যুবকরা উপস্থিত ছিলেন।
ব্যয়ামাগারটিতে দলে দলে রোহিঙ্গা যুবকদের লাইন দিতে দেখে স্থানীয়রাই প্রশ্ন তুলেছেন রোহিঙ্গাদের জন্য ব্যয়ামাগারও খোলা হয়েছে?

জানা গেছে, আড়াইহাজার টাকা ভর্তি ফি নিয়ে মাসিক টাকার বিনিময়ে ব্যায়ামাগারে ভর্তি হতে সবচেয়ে বেশি উৎসাহী হয়ে উঠে রাইন থেকে এক কাপড়ে আসা বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা যুবকরা।

সাধারণত রোহিঙ্গারা কারাতে-কংফুতে অভ্যস্ত। রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় এরকম একটি ব্যায়ামাগার পেয়েও স্থানীয়রা নয় বরং সেখানে ভর্তি হতে লাইন পড়েছে রোহিঙ্গাদের মধ্যে। সুত্র: কালেরকন্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *