সামরিক জান্তা হিসেবে ৬ মাস রাষ্ট্র পরিচালনার পর আনুষ্ঠানিকভাবে মিয়ানমারের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করলেন দেশটির সেনা ও জান্তা সরকারের প্রধান মিন অং হ্লাইং। রোববার (১ আগস্ট) রাষ্ট্রীয় প্রশাসনিক পরিষদের এক বিবৃতিতে তাকে ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকারের’ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার কথা জানানো হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণের পরেই রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে সম্প্রচারিত এক ভাষণে ২০২৩ সালের আগস্টের মধ্যে বহুদলীয় জাতীয় নির্বাচন আয়োজনের ঘোষণা দেন মিন অং হ্লাইং।

এর আগে, চলতি বছরের পহেলা ফেব্রুয়ারি ভোরে অং সান সু চি’র নেতৃত্বাধীন নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে মিয়ানমারের ক্ষমতা দখল করে দেশটির সেনাবাহিনী। এদিন অভিযান চালিয়ে রাষ্ট্রীয় উপদেষ্টা অং সান সু চি এবং ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের আটক করা হয়। একইসাথে দেশজুড়ে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়।

সামরিক এই অভ্যুত্থানের প্রতিবাদে রাজপথে নেমে আসে দেশটির সর্বস্তরের মানুষ। বিক্ষোভকারীদের কঠোর হাতে দমনের পথে হাটে সেনাবাহিনী। অভ্যুত্থানের পর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় হাজার খানেক মানুষ নিহত হয়েছে জান্তা সরকারের নিয়ন্ত্রিত নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে। ধরপাকড়ের শিকার হয়েছে ছয় হাজারেরও বেশি মানুষ।

অভ্যুত্থানের পরদিন জরুরি অবস্থা জারি করে এক বছরের মধ্যে নির্বাচন আয়োজনের ঘোষণা দেয় জান্তা সরকার। তবে রবিবার টেলিভিশনে দেওয়া ভাষণে নয়া প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, নির্বাচন হবে আরও দুই বছর পর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *