তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা হিবাতুল্লাহ আখন্দজাদা রবিবার (১৮ জুলাই) বলেন, তিনি আফগান সংঘাতের রাজনৈতিক সমাধানের ‘কঠোরভাবে পক্ষে’ রয়েছেন। আর তিনি এমন এক সময় একথা বললেন যখন এ কট্টরপন্থী ইসলামি সংগঠন দেশব্যাপী জোরদার যুদ্ধ শুরু করেছে।

বার্তা সংস্থা এএফপি’র বরাতে জানা যায় মুসলমানদের পবিত্র ঈদুল আযহার প্রাক্কালে দেয়া এক বার্তায় আখন্দজাদা বলেন, সামরিক অর্জন ও অগ্রসর হওয়া সত্ত্বেও ইসলামিক আমিরাত এ দেশে রাজনৈতিক সমাধানের কঠোরভাবে পক্ষে। তিনি আরো বলেন, ইসলামি শাসন ব্যবস্থা, শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠার জন্য প্রতিটি সুযোগ ইসলামি আমিরাতের মাধ্যমে কাজে লাগানো হবে।

এর আগে আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের মুখে একের পর এক অঞ্চল দখলে নিতে উঠেপড়ে লাগা তালেবান গোষ্ঠী এবার সহিংসতার মধ্যেই তিন মাসের অস্ত্রবিরতির প্রস্তাব দিয়েছে। তবে এর সঙ্গে তারা জুড়ে দিয়েছে ৭ হাজার বন্দি তালেবান যোদ্ধকে মুক্তি দেওয়ার শর্ত।

কয়েক দিন আগে তালেবান আফগানিস্তানের ৮৫ শতাংশ এলাকা দখলে নিয়ে নিয়েছে বলে দাবি করেছে। যদিও তাদের দাবি নিরপেক্ষ সূত্রে যাচাই করা যায়নি। আর আফগান সরকার এ দাবি প্রচারণা বলে উড়িয়ে দিয়েছে। তবে স্যোশাল মিডিয়ায় পোস্ট হওয়া বিভিন্ন ভিডিও ফুটেজে তালেবান যোদ্ধাদেরকে নানা জায়গায় গুরুত্বপূর্ণ সীমান্ত পারাপার এলাকা দখলে নিতে দেখা যাচ্ছে। তাছাড়া, অন্যান্য কিছু সূত্রের আনুমানিক হিসাব মতে, আফগানিস্তানের ৪০০ জেলার এক তৃতীয়াংশের বেশি এখন তালেবানের হাতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *