কক্সবাজারে একটি নতুন আর্ন্তজাতিক মানের ফুটবল স্টেডিয়াম নির্মাণের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দেওয়ার পর ইতি মধ্যে সেই ফুটবল স্টেডিয়ামের নকশাও অনুমোদন করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। তাই যে কোন মুহুর্তে টেন্ডারে গিয়ে কাজ শুরু করে। এতে করে পর্যটন নগরী কক্সবাজারে খেলাধুলার জন্য আরো উর্বর ভুমি হিসাবে দেশের সকলের কাছে পরিচিতি পাবে। এমন মন্তব্য করেছেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। তিনি ৭ জানুয়ারী বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ভবনে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন।
বাফুফে নির্বাহী কমিটির সদস্য বিজন বড়ুয়া এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ৭ জানুয়ারী মাননীয় ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর সাথে বাফুফে কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক ছিল সেই বৈঠকে তিনি বলেন, কক্সবাজারকে ঘিরে আগামী দিনের বাংলাদেশের ফুটবল সম্ভবনার এক নতুন দোয়ার খুলতে চায় তাই ইতোমধ্যে কক্সবাজারে একটি নতুন করে আর্ন্তজাতিক মানের ফুটবল স্টেডিয়াম করার জন্য অনুমোদন দিয়েছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শুধু তাই নয় সর্বশেষ সেই আর্ন্তজাতিক ফুটবল স্টেডিয়ামের নকশাও অনুমোদন করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। তাই যে কোন সময়ে টেন্ডার প্রকৃয়া শেষ করে কাজ শুরু হবে। তাছাড়া ইতোমধ্যে কক্সবাজারে বিকেএসপি নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে এছাড়া কক্সবাজার সদরের শহীদ বীর শ্রেষ্ট রুহুল আমীন স্টেডিয়ামের প্রচুর উন্নয়ন মূলক কাজ চলছে পাশে আরো একটি ইনডোর জিমনেসিয়াম নির্মাণ কাজ চলছে।
বাফুফে সদস্য বিজন বড়ুয়া বলেন, নতুন আর্ন্তজাতিক স্টেডিয়াম ভবনের স্থান এখনো সঠিক বলতে পারছি না তবে এর জন্য আগে থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা ছিল বর্তমান আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের পাশের জমিতে। এছাড়া রামুতে একটি জায়গা পছন্দ আছে তাই স্থান এখনো নিশ্চিত করে বলতে পারছিনা। তবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন কক্সবাজারকে ঘিরে বেশ কিছু বড় প্রকল্প হাতে নিয়েছে তার সব গুলো বাস্তবায়নের পথে যা বাস্তবায়ন হলে বাংলাদেশের ফুটবল অনেকটা পর্যটন নগরী কক্সবাজার মুখি হয়ে যাবে।
বৈঠকে ক্রীড়া সচিব, বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন, সিনিয়র সহ সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদী এমপি, সহ সভাপতি কাজী নাবিল আহামদ এমপি, সহ সভাপতি আতাউর রহমান ভুইয়া মানিক, মহি উদ্দিন আহামদ মহি সহ  বাফুফের সকল কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য এবং কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *