এবারের মৌসুম শুরুর আগেই ক্লাব ছাড়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসি। তবে বার্সেলোনার সঙ্গে আইনি লড়াইয়ের পরিস্থিতি চলে আসায় ২০২০-২১ মৌসুমটি থেকে যেতে রাজি হয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে স্পষ্ট করেছেন যে, পরের মৌসুমে অন্য কোনো ক্লাবে চলে যাবেন।

মেসির সঙ্গে বার্সেলোনার বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে আগামী বছরের জুন মাসে। যেহেতু এখনও চুক্তি নবায়ন করেননি মেসি, তাই ধরেই নেয়া যায় জুনের পর ঠিকই হয়তো নতুন ক্লাব খুঁজে নেবেন বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা এ ফুটবলার। বিশেষ করে বার্সেলোনার প্রতি বিভিন্ন সময়ে জমা ক্ষোভের পর এমনটা হওয়াই এখন স্বাভাবিক।

তবে চাইলেই মেসিকে বার্সেলোনাকে রাখা সম্ভব- এমনটাই মনে করেন ক্লাবটির স্প্যানিশ ডিফেন্ডার সার্জি রবার্তো। তা কীভাবে সম্ভব? সে উপায়ও বলে দিয়েছেন রবার্তো। তার মতে, বার্সেলোনা যদি এবারের মৌসুমে বেশি বেশি শিরোপা জিততে পারে, তাহলে হয়তো ক্লাব ছেড়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তের ব্যাপারে আবারও ভাববেন মেসি।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমে রবার্তো বলেছেন, ‘মেসি বলেছে যে সে আর এক বছর এখানে (বার্সেলোনা) আছে। তবে আমরা যদি ভালো খেলি এবং শিরোপা জিতি, কে জানে সে হয়তো নিজের সিদ্ধান্ত বদলাতেও পারে? আর যদি এটা সত্যিই হয়, তাহলে তো খুবই ভালো হবে।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘তবে বর্তমানে সবকিছুই একটা কঠিন অবস্থার মধ্যে রয়েছে। খেলোয়াড়রা তাদের নিজেদের সুবিধার কথা ভাবে, যেমনটা ক্লাবও তাদের নিজেদের কথা চিন্তা করে থাকে। যার ফলে সবাইকে খুশি রেখে একটা স্থিতিশীল অবস্থায় পৌঁছানো বেশ কঠিন হয়ে পড়ে। তবে মেসির বিষয়টা একটু ভিন্ন। সে এখানে ২০ বছর ধরে আছে এবং ক্লাবের জন্য সব উজাড় করে দিয়েছে।’

২০১৭-১৮ ও ২০১৮-১৯ মৌসুমে লা লিগা শিরোপা জেতার পর ২০১৯-২০ মৌসুমে সেটি রিয়াল মাদ্রিদের কাছে হাতছাড়া করেছে বার্সেলোনা। নতুন মৌসুমে তাই শিরোপা পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যই বার্সেলোনার। সে লক্ষ্যে নতুন মৌসুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে ৪-০ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা, একটি গোল করেছেন মেসি।

রবার্তো আশা করছেন, এভাবেই ভালো দিন কাটাবে বার্সেলোনা; যাতে করে শিরোপা জিততে পারেন তারা। রবার্তো বলেন, ‘আমি আশা করছি, যতই দিন যাবে সে বার্সেলোনায় আরও ভালো থাকবে এবং শিরোপা জয়ের ক্ষেত্রে মেসির সর্বাত্মক সহযোগিতা আমরা পাবো। এখন আমাদের দায়িত্ব তাকে ভালো একটা পরিবেশ উপহার দেয়া।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *