ডোপ টেস্ট পরীক্ষায় পজিটিভ আসায় ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ২৬ জন সদস্য চাকরি হারাচ্ছেন। ডিএমপি কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম বলেছেন, মাদকের বিষয়ে আমরা সন্দেহভাজন কিছু পুলিশ সদস্যকে ডোপ টেস্ট করিয়েছি। এর মধ্যে ২৬ জন সদস্যের পজিটিভ পেয়েছি। এই ২৬ জনকে চাকরিচ্যুত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

শনিবার রাজধানীর মিরপুরে ডিএমপির ডিসি ট্রাফিকের কার্যালয় উদ্বোধন শেষে এ কথা বলেন তিনি।

মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘মাদকের বিষয়ে আমরা সন্দেহভাজন পুলিশ সদস্যদের ডোপ টেস্ট করিয়েছি। এর মধ্যে ২৬ জন সদস্যের পজিটিভ পেয়েছি। তাদের চাকরিচ্যুত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।’

‘আমাদের বিশ্বাস, এভাবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারলে বাকিদের জন্য সুস্পষ্ট মেসেজ যাবে যে আমরা কাউকে ছাড় দেবো না’ যোগ করেন তিনি।

‘আমাদের এই উদ্যোগের ফলে অনেকে ভালো হয়েছে এবং এ রাস্তা থেকে ফিরে এসেছে’ উল্লেখ করে পুলিশ কমিশনার বলেন, ‘পুলিশ সদস্য যারা মাদকের সাথে সম্পৃক্ত আছে বা মাদক ব্যবসায়ীকে সহযোগিতা করছে সরাসরি তাদের বিরুদ্ধে মামলা নিয়ে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। এ বিষয়ে কোন রকম শিথিলতা দেখানো হচ্ছে না।’

‘একজন সাধারণ মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে যেভাবে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে ঠিক সেভাবে মাদকের সাথে সম্পৃক্ত পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে’ বলে জানান তিনি।

ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (সিটিটিসি) মো. মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন) মীর রেজাউল আলম, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) এ কে এম হাফিজ আক্তারসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সেখানে উপস্থিত ছিলেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *