মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে বিশ্বজুড়ে চলা ভ্রমণে সীমাবদ্ধতা দীর্ঘস্থায়ী কোনো সমাধান নয় বলে জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দীর্ঘস্থায়ী কৌশল হিসেবে এটি উপযুক্তও নয়। করোনা ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা এবং মুখ ঢেকে রাখার মতো প্রমাণিত কৌশলগুলো কাজে লাগানো উচিত। খবর রয়টার্সের।
অনির্দিষ্টকাল ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি না করে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে দেশগুলোকে ভাইরাসটির বিস্তার ঠেকানোর কৌশল গ্রহণের পরামর্শ দিয়েছে জাতিসংঘের এই অঙ্গ সংস্থাটি।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রোস আধানম ঘেব্রেয়েসুস বলেন, মাস্ক পরা, জনসমাগম এড়িয়ে চলা থেকে শুরু করে কঠোর স্বাস্থ্যবিধিগুলো মানার মাধ্যমেই কোভিড-১৯ মহামারিকে হারানোর পথ পেতে পারে বিশ্ব। কিন্তু অনির্দিষ্টকাল ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করা কোনো সমাধান নয়।
তিনি বলেন, ‘যেখানে এসব স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে সেখানে সংক্রমণ নিম্নমুখী, যেখানে মানা হচ্ছে না সেখানে ঊর্ধ্বমূখী। এটিকে (করোনা) নিয়ে সামনে এখনও দীর্ঘ কঠিন পথ পাড়ি দিতে হবে।’ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলায় কানাডা, চীন, জার্মানি এবং দক্ষিণ কোরিয়ার মতো দেশগুলোর প্রশংসা করেন তিনি।
তবে বিশ্বের বেশির ভাগ স্থানেই করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে নেই এবং পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাচ্ছে
উল্লেখ করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বলেন, বিশ্বে অনেক স্থানেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার নজির আছে, এমনকি করোনার প্রকোপ বেশি থাকা অনেক জায়গাতেও এখনও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *