কক্সবাজারের ক্রীড়াউন্নয়নে এবং খেলোয়াড়দের ঢাকা চট্টগ্রাম মুখি করণে নজরুল ইসলাম চৌধুরীর অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে। ৮০র দশকে কক্সবাজারে ফুটবলের গণ জোয়ার সৃষ্টিতে নজরুল ইসলাম চৌধুরী ছিল সব চেয়ে এগিয়ে তিনি প্রথম আবাহনী ক্লাব প্রতিষ্ছা করেন এবং বিভিন্ন ক্লাবকে পৃষ্টপোষকতা করেন। একই সাথে ঢাকা থেকে জাতীয় মানের কোচ এনে স্থানীয় ফুটবলারদের প্রশিক্ষণ করিয়েছেন। তখন যারা প্রশিক্ষণ নিয়েছিল তারা এখন সবাই সুনাধন্য ফুটবলার। এছাড়া উপজেলা ভিত্তিক ফুটবল ক্যাম্প করে তিনি গ্রাম থেকে খেলোয়াড় তুলে এনেছিলেন। তাই জেলার ক্রীড়াঙ্গনে উনার অবদান অনেক বেশি। জীবনের শেষ সময়েও তিনি ক্রীড়াঙ্গনসহ জেলার মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন।

কক্সবাজার জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে বিশিষ্ট্য ক্রীড়া সংগঠক,আবাহনী ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা,বীর মুক্তিযুদ্ধা,বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ মরহুম নজরুল ইসলাম চৌধুরীরর স্মরণ সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

এ সময় বক্তারা জেলা ক্রীড়া সংস্থার হলরুমটি মরহুম নজরুল ইসলাম চৌধুরীরর নামে নাম করণ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

২৫ জুলাই শনিবার দুপুরে জেলা ক্রীড়া সংস্থায় আয়োজিত স্বরণ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি মোঃ কামাল হোসেন,জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ সভাপতি ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ মাসুদুর রহমান মোল্লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত
সভায় বক্তব্য রাখেন- বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সের মহাপচিালক ও বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী এম এম সিরাজুল ইসলাম।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন,সহ সভাপতি আবছার উদ্দিন,অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক মাহামুদুল করিম মাদু,সদস্য হারুন অর রশিদ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সদস্য রতন দাশ। এতে জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তা এবং জেলা ক্রীড়া সাংবাদিক সমিতির নেতৃবৃন্ধ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *