রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের পুর্ব কাউয়ারখোপ গ্রামে ৪ গরু চোর কে ধরে সমাজ উন্নয়ন কমিটির নেতৃত্বে পুলিশে সোপর্দ করেছে জনতা।
২৮ মে বৃহস্পতিবার সকালে তাদের কে পুলিশে দেয়া হয়।
জানা যায় ২৭ মে বুধবার রাতে উপজেলার পুর্ব কাউয়ারখোপ গ্রামের মৃত মৌলানা মোঃ হাছানের পুত্র ও স্হানীয় ঝর্না মোরা মসজিদের ঈমাম মৌঃ হাবিব উল্লাহর একটি গাভী গরু চুরি করে মনিরঝিল গ্রামে বিক্রি করে,বিষয়টি প্রকাশ ফেলে স্হানীয় জনতা বৃহস্পতিবার সকালে গরুটি উদ্ধার করে গরু চুরির সাথে সম্পৃক্ত পুর্ব কাউয়ারখোপ গ্রামের বদিউল আলম পুত্র আনু মিয়া (২৫), আব্বাস মিয়ার পুত্র এহছান উল্লাহ( ২২), তাউজউদ্দীনের পুত্র
মিজানুর রহমান (কালা বাসী) রহমত আলীর পুত্র আবদুল আজিজ( ৪৫) কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন।
রামু থানার এস,আই গনেশচন্দ্র শীল তাদের আটক করে থানায় নিয়ে যায় বলে জানা যায়।
তাছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে রামু উপজেলার বিভিন্ন স্হানে গরু চুরির ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছে, গত মাসে
রামুর সাতঘরিয়া পাড়া থেকে সাংবাদিক আবুল কাসেম সাগরের গরু চুরি হতে না হতেই চলতি মাসের শুরুতে হাইটুপিস্থ মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর আহমদের খামার থেকে ৫ টি অস্ট্রেলিয়ান গাভী লুট করে নিয়ে যায়,এছাড়া ফতেখাঁরকুল, চাকমারকুল, রশিদ নগর থেক একের পর এক গরু চুরির ঘটনা ঘটে।
করোনা ভাইরাস সংকটের এই সময়ে আগের গরু চুরির কোন সমাধান না হলেও পুর্ব কাউয়ারখোপ সমাজ উন্নয়ন কমিটির নেতৃবৃন্দের প্রচেষ্টায় ৪ জন গরু চোর আটক করে পুলিশে দেয় জনতা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *