দেশজুড়ে করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশ। ভারতে উত্তরোত্তর বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। তবে তার থেকেও শোচনীয় অবস্থা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। তারপরও এই মুহূর্তে যুক্তরাষ্ট্রেই নিরাপদ মনে হল সানি লিওনের। সন্তানদের করোনা থেকে বাঁচাতে তাই তিনি লস অ্যাঞ্জেলসেই থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু এই লকডাউনের মধ্যে তিনি মুম্বাই থেকে লস অ্যাঞ্জেলস পৌঁছলেন কী করে, তা নিয়ে উঠছিল প্রশ্ন। যদিও সেই উত্তর দিয়ে দিয়েছেন ড্যানিয়েল।
ঘটনার সূত্রপাত সানিরই একটি পোস্টকে ঘিরে। ইনস্টাগ্রামে সম্প্রতি একটি ছবি শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী। সেখানে তিন সন্তান- নিশা, নোহা ও আসহেরের সঙ্গে দেখা গিয়েছে তাকে।

ক্যাপশনে সানি লিখেছেন, মা হওয়ার পর নিজের চাওয়া-পাওয়াগুলো গৌণ হয়ে যায়। সন্তানরাই তখন মুখ্য। তাই তিনি ও ড্যানিয়েল তাদের তিন সন্তানকে নিয়ে এমন এক জায়গায় গিয়েছেন যেখানে তারা ‘সুরক্ষিত’ থাকবেন। সেখানেই করোনা থেকে বাঁচতে পারবেন বলেও জানান সানি। জায়গাটি আর কোথাও নয়। আমেরিকার লস অ্যাঞ্জেলস।

সানির এই পোস্টে পর ভ্রুঁ কুঁচকে গিয়েছে নেটিজেনদের। কারণ, ভারতের থেকে যুক্তরাষ্ট্রের পরিস্থিতি এখন অনেক খারাপ। মহারাষ্ট্রে যদিও আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে, কিন্তু যুক্তরাষ্ট্র তার চেয়ে ভাল অবস্থা নয় একেবারেই। করোনায় মৃত ও আক্রান্তের হিসেবে এখন শীর্ষ স্থানে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তাই সানি হঠাৎ কেন মুম্বাই ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্র যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন তা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন।

উল্লেখ্য, সানি লিওন ও তার স্বামী ড্যানিয়য়েল ওয়েবার দু’জনেই যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। ২০১২ সালে ভারতে আসার আগে লস অ্যাঞ্জেলসেই থাকতেন তারা। তিন সন্তানের সঙ্গে সানি ও ড্যানিয়েল দিন দুই আগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে গিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ড্যানিয়েল নিজের একটি ছবি পোস্ট করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে তাকে ক্যালিফোর্নিয়ার স্টুডিও সিটিতে দেখা গিয়েছে। ছবিতে লেখা ‘কোয়ারেন্টাইন পার্ট টু। নিতান্ত খারাপ নয়।’ কিন্তু তারা কীভাবে আমেরিকা গেলেন, তা নিয়ে উঠছিল প্রশ্ন। এমনই এক অনুরাগীর প্রশ্নের উত্তরে ড্যানিয়েল জানিয়েছেন সরকারি বিমানে ফিরেছেন তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *