কুমিল্লা কেন্দ্রীয় কারাগারের সহকারী প্রধান কারারক্ষী তরিকুল ইসলাম শাহিনকে ৫২২ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

কারারক্ষী তরিকুল ইসলাম শাহিন চট্টগ্রামের সিতাকুন্ড উপজেলার ইয়াকুব নগরের ফুল মিয়ার ছেলে। তিনি ১৯৯৬ সালের ১৫ জুন চাকরিতে যোগদান করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেল সুপার শাহজাহান আহমেদ।

তিনি আরও জানান, সহকারী প্রধান কারারক্ষী মো. তরিকুল ইসলাম শাহিন (কারারক্ষী নং ২১৫৯৯) কারাগারের ভেতর বন্দিদের কাছে মাদক কেনা-বেচা করে আসছিলেন। বেশ কয়েকদিন ধরে তাকে ফলো করা হচ্ছিল। আজ সোমবার ইয়াবা নিয়ে তিনি ডিউটিতে আসছেন গোপন সূত্রে এমন খবর পেয়ে বেলা সাড়ে ১১টায় প্রধান ফটকে এলে কারা সিপাহী দিয়ে জেল সুপারের রুমে নিয়ে তল্লাশি করা হয়। এ সময় একটি সিগারেটের প্যাকেটে রাখা ১০৬ পিস ইয়াবা ও নগদ ৩০৬০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

পরবর্তীতে তার ঘরে তল্লাশি চালিয়ে বিছানার নিচ থেকে আরও ৪১৬ পিসসহ মোট ৫২২ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

জেল সুপার আরও জানান, কারাগারে ইয়াবা পাচারের দায়ে সহকারী প্রধান কারারক্ষী তরিকুল ইসলাম শাহীনের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রুজু করে তাকে কোতোয়ালি থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়েছে।

ওই অভিযানের সময় জেলার মো. আসাদুর রহমান, ডেপুটি জেলারসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। সন্ধ্যায় কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মো. বিল্লাল হোসেন জানান, ‘কারারক্ষী তরিকুল ইসলাম শাহিন বর্তমানে থানা হাজতে আছে, এ বিষয়ে কারাগার কর্তৃপক্ষ অভিযোগ দেয়ার কথা রয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *