করোনা ঝড়ে লণ্ডভণ্ড সারাবিশ্ব। এই সংক্রমণে নাকানিচুবানি খাচ্ছে পাকিস্তানও। আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য বলছে, দেশটিতে এ পর্যন্ত করোনা রোগীর সংখ্যা ২ হাজার ৮৮০জন ছাড়িয়ে গেছে। মারা গেছেন অন্তত ৪৫ জন।

এমন পরিস্থিতিতে আসছে রমজান মাসে ক্রিকেট খেলা থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে খোদ পিসিবি।

জানা গেছে, আসন্ন রমজানে ক্রিকেট খেলার অনুমতি চেয়ে পিসিবির কাছে চিঠি পাঠিয়েছিল বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার ও কিছু ক্রীড়া সংগঠন।

তাদের সেই চিঠির জবাবে সাফ না জানিয়ে দিয়েছে পিসিবি।

পিসিবির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘কিছু প্রতিষ্ঠান এবং সংগঠকদের পক্ষ থেকে রমজান মাসে ক্রিকেট খেলার অনুমতি চেয়ে অনুরোধ করা হয়েছিল। কিন্তু আমরা তাদের সাড়া দিইনি। আমরা মনে করি, করোনা পরিস্থিতিতে এ অনুরোধ রাখা বোকামি হবে। সমাজে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসার আগে কোনো ক্রিকেট হবে না।

‘আমাদের উচিত পলিসি মেনে চলার। সারা বিশ্বেই এখন সব ধরনের খেলাধুলা বন্ধ রয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই মানুষের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা সবার আগে। এই প্রেক্ষাপটেই পিসিবি রমজান মাসে ক্রিকেট খেলার কোনো অনুমতি দেবে না।’

পিসিবি করোনার বিস্তার রুখতে ক্রীড়া সংগঠন এবং ক্রিকেটারদেরকে সতর্কতামূলক নির্দেশনাগুলো মেনে চলার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে। বিশেষ করে সব ধরনের জনসমাগম এড়িয়ে চলার আহ্বান জানানো হয়েছে।

কবে নাগাদ মাঠে ফের বল মাঠে গড়াতে পারে সেই ইঙ্গিতও দিয়ে রেখেছে পিসিবি।

পিসিবির ভাষ্য, দেশের বর্তমান পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছি আমরা। পরিস্থিতি ভালোর দিকে গড়ালে মাঠে বলও গড়াবে। তখন পলিসিতে সংশোধন আনার কথা ভাবা হবে।

তথ্যসূত্রঃ গালফ টুডে, বিডি ক্রিক টাইম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *