মনের যত্ন নেওয়া জরুরি কাজ বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি। একইসঙ্গে শরীরের পাশাপাশি মনের যত্ন নিলেই সুখী হওয়া যাবে বলে পরামর্শও দিয়েছেন তিনি।

বুধবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বাংলা একাডেমিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ‘মনের যত্ন’ বইয়ের আনুষ্ঠানিক মোড়ক উন্মোচন করেন শিক্ষামন্ত্রী।

মোড়ক উন্মোচন শেষে নিজ বক্তব্যে দিপু মনি বলেন, মনের যত্ন নেওয়া জরুরি কাজ। আমরা শুধু আমাদের শরীর নিয়ে কাজ করি। কিন্তু মন যখন এলোমেলো হয়ে যায়, তখন সব এলোমেলো হয়ে যায়। আমরা অনেক সময়ই মন নামক জিনিসটার যত্ন নিই না। আর তখন সেখান থেকেই সব সমস্যার জন্ম নেয়।

বইটির প্রশংসা করে দিপু মনি বলেন, বইটিতে মানসিক স্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য যা যা করা দরকার, সেগুলোর সবকিছুই আছে। ধ্যানের বিষয়েও বিস্তারিত আছে। আমি মনে করি সবার এই বই পড়া দরকার। সহজ করে, সুন্দর করে বইটি লেখা হয়েছে। বইটি দেখতেও সুন্দর। বইটি পড়লে সবাই সুফল পাবে আশা করি।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান। তিনি বলেন, বাস্তবধর্মী উপায় কিছু শিক্ষা দেবে আমাদের। বইটির একটি স্বতন্ত্র উপস্থাপনা রয়েছে। পেশাদারিত্বের মতো বিষয়কে সামনে রেখে বইটি লেখা হয়েছে। লেখকের যে একাডেমিক ব্যাকগ্রাউন্ড এবং গবেষণার ক্ষেত্র, তা তাকে এ ধরনের বই লেখার যোগ্যতা দেয়। মনকে কীভাবে যত্ন নিতে হয়, কীভাবে সামলে রাখা যায়, সেই বিষয়গুলো এখানে আছে। মনের সুস্থতা আপনার সুস্থতা। স্ট্রেস ম্যানেজমেন্টের জন্য হলেও এই বই পড়া দরকার।

বইটি নিয়ে নিজ অনুভূতি জানিয়ে এর লেখক রাউফুন নাহার বলেন, আমি খুবই আবেগাপ্লুত। অনেক গুণী মানুষের হাত ধরে মানসিক স্বাস্থ্যের বিশাল এই জগতে আমার প্রবেশ। আজকের দিনটি সত্যিই আমার জন্য বিশেষ দিন। অনেকেই মানসিক কাউন্সিলরের কাছে সরাসরি সেবা নিতে আসেন না। আমরা চেয়েছি সেই সেবাটিকে সবার কাছে পৌঁছে দিতে। আর সেই চাওয়া থেকেই এই বই লেখা।

লেখক আরও বলেন, বইটিতে একটি আকর্ষণীয় অধ্যায় রয়েছে। সেটি হচ্ছে মন ভালো রাখার জন্য ৫২ জন মনোবিজ্ঞানের দেওয়া কৌশল। এসব মনোবিজ্ঞানী তাদের নিজেদের মন ভালো রাখতে যা করেন, সেগুলো আমাদের সঙ্গে শেয়ার করেছেন। আবার বইয়ে উল্লেখ আছে। বইটিতে আরও বিভিন্ন ধরনের যোগাসন বা যোগ ব্যায়ামের উল্লেখ আছে। বইটির মাধ্যমে আমি একটি বার্তা দিতে চাই। আর তা হলো- আমাদের সবার একটি মন আছে, সেটির যত্ন প্রয়োজন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মোহিত কামাল, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন, সম্প্রীতি বাংলাদেশের সদস্য সচিব অধ্যাপক ডা. মামুন-আল-মাহতাব স্বপ্নীল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এডুকেশন অ্যান্ড কাউন্সিলিং সাইকোলজি বিভাগের অধ্যাপক মেহতাব খানম, একই বিভাগের অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান মেহজাবিন হক প্রমুখ।

অনিন্দ্য প্রকাশ থেকে বেরিয়েছে পাঁচ অধ্যায়ের বইটি। এর দাম পড়বে ২২৫ টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *