বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন গতকালই (মঙ্গলবার) জানিয়েছেন, ক্রিকেটাররা কেউ ফোন ধরছেন না। এখন উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবিলা বিশেষ করে আন্দোলন থামিয়ে ক্রিকেটাদের মাঠে ফিরিয়ে আনতে সংলাপের বিকল্প নেই। বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আমার দরজা খোলা, কিন্তু ক্রিকেটারদের তো আসতে হবে। তবেই না কথা বলা সম্ভব।’

বিসিবি বিগ বসের সে কথার প্রতিধ্বনি শোনা গেছে জাতীয় দলের তিন সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান বোর্ড পরিচালক-আকরাম খান, খালেদ মাহমুদ সুজন ও নাইমুর রহমান দুর্জয়ের মুখে। ক্রিকেটার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন (কোয়াব) সভাপতি নাইমুর রহমান দুর্জয় আক্ষেপ করে বলেন, ‘আগে অনেক ব্যক্তিগত ও সমষ্টিগত ইস্যুতে ক্রিকেটাররা এসে কথা বললেও এবারের ১১ দফা নিয়ে আমার কাছে আসেনি বা কেউ ফোনেও কথা বলেননি।’

আজ বুধবার সকালে জাগো নিউজের সাথে আলাপে জাতীয় দলের দুই সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান ও খালেদ মাহমুদ সুজনও ঠিক একই কথা বলেছেন। সুজন বলেন, ‘একজন সিনিয়র ক্রিকেটারও যোগাযোগ করেননি। আমি উল্টো যোগাযোগ করার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছি। তামিম, সাকিব, মুশফিক, মাহমুদউল্লাহই শুধু নন; জুনিয়ররাও কেউ ফোন ধরছে না।’

বিকেলে বোর্ডের সঙ্গে বসতে পারেন সাকিব-তামিমরা
দেশের ক্রিকেটের চরম সংকট ও অস্থিতিশীল অবস্থা আরও ঘনীভূত হবার পথে যাচ্ছিল, ঠিক তখনই সুসংবাদ শোনালেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। আজ মধ্যাহ্নে শেরে বাংলায় উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে বিসিবি সিইও জানান, জাতীয় দলের অন্যতম সিনিয়র ক্রিকেটার তামিম ইকবালের সঙ্গে তার কথা হয়েছে। তামিম আশ্বস্ত করেছেন, নিজেদের মধ্যে কথা বলে তারপর সিদ্ধান্ত জানাবেন।

জানা গেছে, ক্রিকেটাররা আজ বুধবার গুলশানে কোনো একটা রেস্টুরেন্টে বিকেলে বসবেন। সেখানেই তারা পরবর্তী কার্যক্রম নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন। বিসিবি সিইওর সঙ্গে ফোনালাপে তামিমও এমনটাই জানিয়েছেন।

নিজামুদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘বোর্ড সভাপতির নির্দেশে আমরা আবার খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালাই। জাতীয় দলের খেলোয়াড় তামিম ইকবালের সঙ্গে আমার কথা হয়। ওকে জানানো হয়েছে আর্থিক যে বিষয়গুলো আছে সেগুলো সমাধান সময়ের ব্যাপার মাত্র। দ্রুত বিষয়গুলো নিষ্পত্তি হবে। তামিমও জানিয়েছেন ও ওর টিমমেট যারা আছে, তাদের সঙ্গে কথা বলে বিষয়টি জানাবে। আমরা এরই মধ্যে জেনেছি ক্রিকেটাররা কোথাও না কোথাও বসবে। আমাকে জানিয়েছে, বিকেল ৫টার পর আমরা অ্যাভেইলেবল আছি। বাইরে কোথাও বা বোর্ডে তাদের সঙ্গে আমাদের আলোচনা হতে পারে।’

Comments are closed.