শেষ প্রস্তুতিতে ভারতের মুখোমুখি বাংলাদেশ

15

অনুশীলনে বাংলাদেশবিশ্বকাপের মূল মঞ্চে নামার আগে শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশ। বিশেষ করে এই ম্যাচ এখন টাইগারদের সামনে নিজেদের ভুল-ত্রুটি শুধরে নেওয়ার শেষ সুযোগ। কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেনস স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে তিনটায় ম্যাচটি মাঠে গড়াবে। প্রস্তুতি ম্যাচটি সরাসরি সম্প্রচার করবে গাজী টিভি ও স্টার স্পোর্টস।

সম্প্রতি বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ মানেই যেন তা বাড়তি উত্তেজনা। শেষ বলের নাটকীয় সব ঘটনা! সবশেষ এশিয়া কাপ ও নিদাহাস ট্রফির ফাইনালের রোমাঞ্চকর ম্যাচে স্নায়ুর কঠিন পরীক্ষা দিয়েও শেষ পর্যন্ত জিততে পারেনি বাংলাদেশ। এছাড়া ২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের কাছে ১ রানের হার এখনো পোড়ায় টাইগার ভক্তদের। ৫০ ওভারের ক্রিকেটে দুই দলের লড়াইয়ে ভারত এগিয়ে থাকলেও বাংলাদেশ তাদের সেরাটা দিতে প্রস্তুত।

দলের তরুণ অলরাউন্ডার সাইফউদ্দিন আত্মবিশ্বাসী কণ্ঠে ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ‘ভারতের বিপক্ষে সর্বশেষ ম্যাচগুলোতে আমরা শেষ মুহূর্তে হেরে গেছি। এবার চেষ্টা করব আমরা শতভাগ দিয়ে ম্যাচ জেতার। এই প্রস্তুতি ম্যাচটিতে ভালো করলে মূল পর্বে ওদের বিপক্ষে আত্মবিশ্বাস নিয়ে নামতে পারবো। আশা করি সবার সম্মিলিত চেষ্টায় আমরা সেরা একটি ম্যাচ উপহার দিতে পারবো।’

ভারতের বিপক্ষে সোফিয়া গার্ডেনে নামার আগে বাংলাদেশের ইতিবাচক থাকার আরও একটি কারণও আছে! এই ভেন্যু বাংলাদেশকে দুই হাত ভরে দিয়েছে। এই মাঠেই যে তখনকার পরাক্রমশালী অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকে কাঁপিয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। আশরাফুলের সেঞ্চুরির কাছে পরাজিত হয়েছিল রিকি পন্টিংয়ের অস্ট্রেলিয়া। এছাড়া ২ বছর আগে গত চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বাংলাদেশ সেমিফাইনালের টিকিট কেটেছিলো এই ভেন্যুতেই। পয়মন্ত এই ভেন্যুতে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটি জিততে তাই বাংলাদেশ ভীষণ আত্মবিশ্বাসী।

ভারত যে খুব ভালো অবস্থানে আছে সেটাও নয়। ঘরের মাঠে ৩-২ ব্যবধানে অস্ট্রেলিয়ার কাছে সিরিজ খুঁইয়েছে তারা। বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে বিরাট কোহলির দল। তাদের সামনেও বাংলাদেশের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচটি কম্বিনেশন সাজিয়ে নেওয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

প্রস্তুতি ম্যাচ হলেও ভারতের বিপক্ষে পূর্ণশক্তির দল নিয়ে মাঠে নামার সম্ভাবনা লাল-সবুজ জার্সিধারীদের। বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হওয়া পাকিস্তানের বিপক্ষে ওই ম্যাচে একাদশে সাকিব ছিলেন না। তবে ভারতের বিপক্ষে সাকিবের একাদশে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। এদিকে সাত নম্বর জায়গা নিয়ে মধুর সমস্যায় পড়েছে বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। এই পজিশনে নিয়মিত খেলেন সাব্বির। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে মোসাদ্দেকের অতিমানবীয় ইনিংসের ওপর ভর করেই জিতেছিল বাংলাদেশ। তাতে করেও মোসাদ্দেকের জায়গা নিশ্চিত নয়! তবে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচটিতে সাব্বির-মোসাদ্দেক দু’জনকেই দেখা যেতে পারে।